শহীদ কাদেরীর কবিতাপ্রেমীদের মানববন্ধন

শিল্প ও সাহিত্য

২০১১ সালে কবি শহীদ কাদরী মারা গেলে এর পরপরেই ‘শহীদ কাদরীর কবিতা সমগ্র’ প্রকাশ করে একটি প্রকাশনী। এরপর গত বছর শহীদ কাদরীর লেখা নিয়ে আরও দুটি বই ‘গোধূলীর গান’ এবং ‘তোমাকে আংটির মত পরেছি স্বদেশ’ প্রকাশিত হয়। প্রকাশনা সংস্থাগুলো কবি পরিবারের কারও অনুমতি নেননি। তাদের এরকম আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিবাদ জানাতে মানববন্ধনের আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শহীদ কাদরীর কবিতা অনুরাগীবৃন্দের ব্যানেরে অনুমতি ছাড়া একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রয়াত কবি শহীদ কাদরী রচিত বইয়ের প্রকাশনা ও বিক্রি বন্ধের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়। এ মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। ৩১ জানুয়ারি বুধবার দুপুর ০২.০০ টায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
শহীদ কাদরী বাংলাদেশী কবি ও লেখক। দেশপ্রেম, অসাম্প্রদায়িকতা, বিশ্ববোধ এবং প্রকৃতি ও নগর জীবনের অভিব্যক্তি তার কবিতার ভাষা, ভঙ্গি ও বক্তব্যকে বৈশিষ্ট্যায়িত করেছে। তিনি আধুনিক নাগরিক জীবনের প্রাত্যহিক অভিব্যক্তির অভিজ্ঞতাকে কবিতায় রূপ দিয়েছেন। নাগরিক-জীবন-সম্পর্কিত শব্দ চয়নের মাধ্যমে বাংলা কবিতায় নাগরিকতা ও আধুনিকতাবোধের সূচনা করেন। ১৯৪৭ সালের পরবর্তীকালের বাঙালি কবিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কবি শহীদ কাদেরী। তিনি ২০১১ সালে ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে একুশে পদক লাভ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.