বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮.৩ কি.মি. অপরাধমুক্ত ঘোষণা

৯ মার্চ শুক্রবার বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষীবাহিনী-বিজিবি ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ এর যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ দশমিক ৩ কিলোমিটার এলাকা ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ বা অপরাধমুক্ত এলাকা ঘোষণা করা হয়েছে। দুপুরে যশোরের শার্শা সীমান্তের বিপরীতে ভারতের বনগাঁও সীমান্তে ৬৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কাল্যাণী বিওপির আওতাধীন সীমান্ত এলাকায় এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, বিএসএফের মহাপরিচালক শ্রী কে কে শর্মাসহ দুই দেশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিতি ছিলেন।

সীমান্তবর্তী এ এলাকার মধ্যে চোরাচালান, নারী ও শিশুপাচার, মানবপাচার, মাদক, অস্ত্র ও বিস্ফোরক পাচারের মতো কোনো আন্তঃসীমান্ত অপরাধ বা কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড না হওয়ার বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক নজরদারি রাখবে বিজিবি ও বিএসএফ। এর অংশ হিসেবে ওই সীমান্তের বাংলাদেশ অংশে অপরাধ বন্ধে ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা, সার্চলাইট, থার্মাল ইমেজারসহ বিভিন্ন নজরদারি প্রযুক্তি স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া সীমান্তে অপরাধ প্রতিরোধে স্থানীয় জনগণকে সচেতন করার উদ্যোগে নেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চার হাজার ১৫৬ কিলোমিটার রয়েছে যা পর্যায়ক্রমে সীমান্তের বিভিন্ন এলাকা অপরাধমুক্ত ঘোষণা করতে বিজিবি ও বিএসএফ সমন্বিতভাবে কাজ করবে।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *