প্রক্সি পরীক্ষা দিতে গিয়ে বুয়েট-ঢাবির তিন শিক্ষার্থীসহ মোট ছয় শিক্ষার্থী জেলে

বুয়েটের দুই, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীসহ মোট ছয় ভুয়া নিয়োগ পরীক্ষার্থীকে দেড় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার কিশোরগঞ্জের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের মো. সাঈদ সাজা দেন

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনের অফিস সহায়কসহ পাঁচটি পদে ৬৬টি শূন্য পদে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। শহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কেন্দ্রে মোট হাজার ৪৯৭ জন চাকরি প্রার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। ওই ছয় পরীক্ষার্থী জেলা প্রশাসনের সিল এবং নিজের ছবি সংবলিত নকল প্রবেশপত্র তৈরি করে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। কিন্তু পরীক্ষা পরিদর্শকেরা মূল আবেদনপত্রের ছবির সঙ্গে প্রবেশপত্রের ছবির অমিল দেখতে পেয়ে তাঁদেরপ্রক্সি পরীক্ষার্থীহিসেবে চিহ্নিত করে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে তাঁদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে দেড় মাস করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন বরগুনা সদরের কলেজ ব্রাঞ্চ রোডের বাসিন্দা আব্দুল মোতালিবের ছেলে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী ফারদিন হাসান (২৫), রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা একরামুল হক সরকারের ছেলে বুয়েটের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ফয়সাল সরকার (২৪), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্বধর্ম সংস্কৃতি বিভাগের ছাত্র মো. আনোয়ার হোসেন (২৬), কিশোরগঞ্জের মিঠামইনের চানপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে স্থানীয় সরকারি গুরুদয়াল কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের সম্মান চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম (২৪), জেলার নিকলীর দৌলতপুর গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে মো. শরীফুল ইসলাম (২৪) হোসেনপুরের দক্ষিণ পানান গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে মো. আব্দুল কাদির (২৬)

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *