পাকিস্তানে ধর্ষণের সাজা প্রতিশোধমূলক ধর্ষণ

পাকিস্তানে ধর্ষণের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়া ব্যক্তির কোনো নারী স্বজনকে ‘প্রতিশোধমূলক’ ব্যবস্থা হিসেবে ধর্ষণের আদেশ দেওয়া হয়েছে। আর এমন আদেশের সঙ্গে জড়িত ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির কর্মকর্তারা মঙ্গলবার এ কথা জানান।

এএফপি ও জিও নিউজের খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব রাজ্যের দক্ষিণ-পশ্চিমের তোবা টেক সিং শহরে গত মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটেছে। লাহোর থেকে ২৭৫ কিলোমিটার দূরের ঘারিবাবাদ এলাকায় ১৬ বছর বয়সী এক কিশোরীকে ধর্ষণের সময় ধরা পড়ে ওয়াসিম শেহজাদ নামের এক কিশোর। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিবেশীরা ওই কিশোরকে হত্যার দাবি জানান। এরপরই ওয়াসিম শেহজাদের পরিবার ওই কিশোরীর পরিবারের কাছে এক প্রস্তাব রাখে। সেটি হলো ওই কিশোরীর পরিবারের যে কেউ কিশোরের পরিবারের নারীকে ধর্ষণ করতে পারবেন। এ প্রস্তাবে রাজি হয়ে ওয়াসিমের ৪০ বছর বয়সী বোনকে ধর্ষণের মধ্য দিয়ে ‘বদলা নেয়’ ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোরীর ভাই। এ ঘটনায় করা এক মামলায় ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *