জেএমবি সদস্য সাইফুল ও মফিজুলের ২০ বছর ৬ মাস কারাদন্ড

আইন আদালত খবর

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলায় নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের(জেএমবি) অভিযুক্ত দুই সদস্যকে ২০ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একইসাথে তাঁদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদন্ড দেন আদালত।

বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক মো. আবদুল হান্নান দুই আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফরাজীকান্দা এলাকার মৃত কামাল উদ্দীনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৩) ও সোনারগাঁ উপজেলার কোনাবাড়ি এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে মফিজুল ইসলাম (৩১)।

প্রসঙ্গতঃ ২০০৬ সালের ২৯ ডিসেম্বর টাঙ্গাইল জেলার বায়না বাইপাস সড়কে র‍্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা বিভাগের মেজর আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে একটি দল বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্রসহ জেএমবি সদস্য সাইফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে। পরে সাইফুলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি র‍্যাবের একটি দল সোনারগাঁয়ের কোনাবাড়ী এলাকায় মফিজুলের বাড়ি থেকে ৩১টি পাওয়ার জেল, ১৯টি দেশে তৈরি হ্যান্ডগ্রেনেড বডি উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় র‍্যাবের ডিএডি আবদুস সালাম বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলাটি করেন।

সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল থানায় ২টি, বন্দর থানায় ২টি, আড়াইহাজার থানায় ১টি ও রূপগঞ্জ থানায় ১টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে টাঙ্গাইলের একটি মামলায় সাইফুলের মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয়া হয়েছে এবং নারায়ণগঞ্জে ৩টি মামলায় ১৫ বছর, ২০ বছর ও ১২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ নিয়ে চারটি মামলায় সাইফুলের সাজা হল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.