রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নোবেল পুরস্কার নিয়ে মন্তব্য করে বিপাকে পড়লেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব

আন্তর্জাতিক বিবিধ

নিজের মন্তব্যে অবিচল থেকে একের পর এক বিতর্কের তীর ছুঁড়ে যাচ্ছেন ত্রিপুরা রাজ্যের সদ্য নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

তবে এবার রবীন্দ্রনাথকেও ছাড়লেননা বিপ্লব। রাজ্যের উদয়পুরে পুরনো রাজবাড়িতে ভুবনেশ্বরী মন্দির চত্বরে শুরু হয়েছে রাজর্ষি উৎসব। বুধবার তারই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিপ্লব। সেখানে ভাষণ দিতে গিয়ে তার মন্তব্য, ‘ইংরেজ সরকারের বিরোধিতা করে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নোবেল পুরস্কার বর্জন করেছেন।’

রবীন্দ্রজয়ন্তীতে মুখ্যমন্ত্রীর ওই মন্তব্যে ব্যঙ্গের পাশাপাশি সমালোচনার ঝড় উঠেছে সর্বত্র।

 

এর আগেও একাধিকবার এমন বাক্য-বিভ্রাট ঘটিয়েছেন তিনি। কখনো বলেছেন, ‘মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট ছিল। তা না হলে সঞ্জয় কিভাবে ধৃতরাষ্ট্রকে কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের ধারাবিবরণী দেবেন?’

আবার কখনো তার পরামর্শ, ‘সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদেরই সিভিল সার্ভিসে যাওয়া উচিত। মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারদের নয়।’

নতুন প্রজন্মের কাছে নিজস্ব ভঙ্গিতে তিনি পরামর্শ দেন, ‘চাকরির বদলে গরুর দুধ বিক্রি করলে ১০ বছরের মধ্যে ১০ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে যাবেন।’

প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ডায়না হেডেনকে নিয়ে তার পর্যবেক্ষণ, ‘ডায়না হেডেন এমন কোন সুন্দরী নন যে তাকে বিশ্বসুন্দরী করতে হবে।’

 

একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করেই যাচ্ছেন তিনি। সমালোচিতও হচ্ছেন একইভাবে। শুধুই কি আলোচনায় আসার জন্য এমনটি করছেন? এমন প্রশ্নও আসছে অনেক নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.