ধর্ষণে অভিযুক্ত ধর্মগুরু দাতি মহারাজের আশ্রম থেকে নিখোঁজ ৬০০ নারী

আন্তর্জাতিক খবর

বিতর্কিত স্বঘোষিত ‘বাবা’র তালিকায় আরো এক নতুন সংযোজন দাতি মহারাজ।  রাজস্থানের অলওয়াসে দাতি মহারাজের আশ্রম থেকে নিখোঁজ প্রায় ৬০০ নারী শিষ্য নিখোঁজ হয়েছেন। তাঁদের খোঁজ এখনো পায়নি পুলিশ।

স্বঘোষিত এই ধর্মগুরুর একাধিক আশ্রম আছে।

দু’বছর আগে শনি ধামে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে এই ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। অভিযোগকারিণী(২৫) দাবি করেছিলেন, মহারাজের আশ্রমে একাধিক নারীর সঙ্গে হামেশাই যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটছিল।

বিষয়টি দীর্ঘদিন চাপা ছিল। গত সোমবার ওই তরুণী আশ্রমের মহারাজের বিরুদ্ধে স্থানীয় ফতেপুর বেরি থানায় ধর্ষণের মামলা করেন। মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশ ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে।

অভিযোগকারী তরুণী বলছেন, ধর্ষণের মামলা দায়ের করার পর ধর্মগুরুর শিষ্যরা তাঁকে জীবননাশের হুমকি দিয়েছেন। তাঁকে মামলা তুলে নিতে বলেছেন।

গতকাল রোববার রাজস্থানে দাতী মহারাজের আশ্রমে হানা দেয় পুলিশ। তবে সেখানে দাতী মহারাজকে পাওয়া যায়নি। তিনি আত্মগোপন করেছেন। দাতী মহারাজের বিরুদ্ধে পুলিশ ‘লুক আউট’ নোটিশ জারি করেছে।

মামলার পরিপ্রেক্ষিতে দাতী মহারাজকে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে দিল্লির মহিলা কমিশন।

রাজস্থান পুলিশ জানান, ওই ধর্মগুরুর আশ্রমে অন্তত ৭০০ জন নারী ছিলেন। তাদের ১০০ জনকে উদ্ধার করা গেলেও বাকিদের খোঁজ মিলছে না।

তদন্তকারীদের অনুমান, নিখোঁজদের অন্যত্র পাচার করে দেয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে, নিজ ঘরে ফিরে যাওয়া, অপহরণ বা অপরাধ জগতের সঙ্গে তাঁদের যোগ থাকার সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ। দাতি মহারাজকে হাতে পেলেই নারীদের খোঁজ পাওয়া সম্ভব বলে মনে করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.