মাত্র চার বছর বয়সে একটি বইয়ের লেখক অয়ন

আন্তর্জাতিক খবর

অসম্ভব হলেও সত্য। মাত্র চার বছর বয়সেই লেখক হিসাবে পরিচিতি পেল ছোট্ট শিশু অয়ন।

অয়ন গগৈ গোহাই ভারতের আসাম রাজ্যের উত্তর লখিমপুর জেলায় বাস করে। উত্তর লখিমপুর জেলার সেইন্ট মেরি স্কুলে পড়াশোনা করে সে।

সম্প্রতি ভারতের সর্বকনিষ্ঠ লেখকের মর্যাদা পেয়েছে অয়ন। দ্য ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডস অয়নকে এই উপাধি দিয়েছে।

গত জানুয়ারি মাসে প্রকাশিত তার লেখা বইটির নাম ‘হানিকম্ব’। বইটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫০ রুপি।৩০টি ছোট ছোট অধ্যায় আছে বইটিতে। বইয়ের প্রচ্ছদ ও বিভিন্ন স্থানে অয়নের আঁকা ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

বইটির ভূমিকায় বলা হয়েছে, অয়ন এক বছর বয়স থেকেই আঁকাআঁকি শুরু করেছিল। তিন বছর বয়সে নিজেই ‘গল্প তৈরি’ করতে শিখে ফেলে সে। শব্দ, রং, স্বাদ প্রভৃতির প্রতি নিজের পর্যবেক্ষণ কাজে লাগিয়ে ‘হানিকম্ব’ বইটি লিখেছে অয়ন।

অয়ন গগৈ তার দাদা-দাদির সঙ্গে বসবাস করে। তার বাবা-মা থাকেন মিজোরামে।

শিশুটি বলেছে, ‘আমার চারপাশে যা ঘটে, তাই নিয়ে লিখি আমি। এটি যেকোনো কিছুই হতে পারে, যেমন দাদার সঙ্গে কথা বলা বা মাত্র শেখা নতুন কিছু।’

সে বলে, ‘আমার দাদা আমাকে আঁকার অনুপ্রেরণা দেন। নতুন কিছু লেখার উৎসাহ দেন। তিনি আমার রক স্টার। তিনি আমার চকলেট ম্যান।’

তার দাদা পূর্ণ কান্ত গগৈ বলেন, ‘আমার মনে আছে, একবার রংধনু দেখে সে একটি কবিতা লিখেছিল। বড় হলে নিশ্চয়ই সে ভালো কিছুই সৃষ্টি করবে।’

অয়নের লেখা বইটি অনেক সাহিত্য সমালোচকেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করছে। অয়নের লেখা বেশ জীবন্ত এবং সৃষ্টিশীল। বইটি যেকোনো পাঠককে মুগ্ধ করবে বলেও কেউ কেউ দাবি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *