বিমানবন্দরে সৌদি ফেরত নারীকর্মীর আত্মহত্যার চেষ্টা

খবর ঢাকা বিভাগ সমগ্র বাংলাদেশ

হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে সৌদি আরব থেকে ফেরত আসা এক নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বিমানবন্দরের তিন তলায় টয়লেটে তিনি কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

তাঁকে দ্রুত উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর নাম রুনা লায়লা (২৪)। গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের বিরল থানা এলাকায়। দেশে ফেরার পর সাভার এলাকার জিরাবো এলাকায় বোনের বাসায় থাকেন।

বিমানবন্দর থানা সূত্রে জানা যায়, ওই নারী একমাস আগে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরেছেন। মঙ্গলবার তিনি তার লাগেজ নেয়ার জন্য বিমানবন্দরে আসেন। পরে টয়লেটে গিয়ে কিছু পান করেন। এরপর বিষয়টি টের পেয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ পুলিশকে অবগত করে। পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা ও পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি আরো বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, চিরকুটে বাংলাদেশ দূতাবাস ও সৌদি আরব দূতাবাসকে সেফ হাউজে থাকা গৃহকর্মীদের বাঁচানোর অনুরোধ করা হয়েছে। চিরকুটে উল্লেখ করা হয়েছে, সেখানে গৃহকর্মীদের দিয়ে অনেক খারাপ কাজ করানো হয়। চিরকুটটির শেষদিকে মরতে বাধ্য করল লেখার পর চারজন ব্যাক্তির নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রুনা লায়লার কাছ থেকে জানা যায়, তিনি ২০১৬ সালের মার্চে সৌদি আরবে যান। সেখানে একটি কোম্পানীতে কিছুদিন কাজ করেন। কিন্তু সেখান থেকে ঠিকমতো বেতন দেয়া হয়নি। পরে লোকমান নামের একজনের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। লোকমান তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সাত মাস ধরে নির্যাতন করেন। দেশে এসে কাজীর মাধ্যমে বিয়ে করবেন বলে জানিয়েছিলেন লোকমান। কিন্তু লোকমান তা করেননি। ওই নারী আরো বলেন, সৌদিতে অনেক বাংলাদেশি নারী শ্রমিক আছেন। তাদের ওপর অমানুষিক নির্যাতন চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.