করোনা সেরে ওঠার পরও যেসব প্রভাব থাকছে শরীরে

লাইফস্টাইল

করোনার প্রভাব নানা ভাবে পড়ছে শরীরের উপরে। সংক্রমণের জেরে ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তবে তাতেই থেমে থাকছে না এই ভাইরাস।  চিকিৎসকেদের কথায়। শরীর ভাইরাসমুক্ত হওয়ামাত্রই যে সে সব সমস্যা কেটে যাচ্ছে, তেমন নয়। বরং বহু ক্ষেত্রেই ভাইরাসের প্রভাবে দীর্ঘ দিন ধরে থেকে যাচ্ছে সেই সমস্যা।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হতেই দেখা যাচ্ছে, এমন কিছু উপসর্গ, যা আগের বার তেমন ভাল ভাবে নজরে পড়েনি। তারই মধ্যে চোখে পড়ার মতো হল মস্তিষ্কের উপরে ভাইরাসের দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব।  অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে করোনা থেকে সেরে ওঠার মাস ছয়েক পরেও স্নায়ু সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে। এই ভাইরাস যে ফুসফুসের পাশাপাশি মস্তিষ্কের ক্ষতিও করছে যথেষ্ট, তা বুঝতে সময় লেগেছে অনেকের। তবে এখন বহু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, করোনা ছেড়ে গেলেও মস্তিষ্কে ধোঁয়াশার মতো কিছু সমস্যা বেশ প্রকট হয়ে উঠছে বলে জানাচ্ছেন মনোরোগ চিকিৎসক জয়রঞ্জন রাম। তিনি বলেন, ‘‘ধোঁয়াশার পাশাপাশি, উদ্বেগ, টানা মাথা ঝিমঝিম করার মতো অসুবিধাও অনেকের হচ্ছে। মানসিক ক্লান্তিও লক্ষ্য করা যাচ্ছে বহু করোনা থেকে সেরে ওঠা মানুষের মধ্যে।’’ আর থাকছে যখন-তখন মাথা ব্যথা, ঘুম না হওয়ার মতো সমস্যা।

তবে এমনটা সকলের ক্ষেত্রেই হবে, তা কিন্তু নয়। ফলে মস্তিষ্কের ক্ষতি হবেই ভেবে আগে থেকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন মনোরোগ চিকিৎসক অনিরুদ্ধ দেব।

উদ্বিগ্ন হচ্ছেন মনে করলে, হাল্কা ব্যায়াম, গান শোনা, বাগানের যত্ন নেওয়ার মতো কাজে মন দিতে হবে। টিভি বা কম্পিউটারের পর্দায় সর্বক্ষণ চোখ থাকলে মানসিক চাপ বাড়তে পারে। ফলে মাঝেমাঝে সে সব থেকে চোখ সরিয়ে রাখতে হবে বলেও মত চিকিৎসকেদের।

শরীরের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি। স্নায়ু সংক্রান্ত সমস্যা হচ্ছে মনে করলেই চিকিৎসকের সাহায্য নিতে হবে। বাড়িতে নিজের মতো করে কোনও পদক্ষেপ করার চেষ্টা একেবারেই নয়। চিকিৎসকেদের পরামর্শ, করোনা থেকে সেরে ওঠার পরে অন্তত ছ’মাস বেশ সাবধানে থাকতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে অতিরিক্ত দুর্বলতা, উদ্বেগ, মাথা ব্যাথা বা ঘুমের সমস্যা টানা অনেক দিন থেকে যাচ্ছে কি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.